Search

ব্যক্তিশিশুকেচেনা

আমি ব্যক্তি, আমি পরিবারে বড় হচ্ছি, সমাজের কাছ থেকে এবং পারিপার্শ্বিকতা থেকে শিখেছি: ভাষা বা মানবিক গুণাবলী অথবা ত্রুটিপূর্ন আচরণ, আর এটাই আমি. আমার ব্যক্তিত্ব প্রভাবিত হচ্ছে পরিবার, পরিবেশ, সমাজ, আমার দেশ এবং অন্যান্য দেশের প্রতিদিনকার আচরণের মাধ্যমে।

Psychologist রা একমত প্রকাশ করেন, শিশুর ব্যক্তিত্ব বিকাশে দুটি factors/উপাদান হলো nature বা temperament আর অন্যটি হলো nurture বা environment বা লালন পালনের ধরণ. প্রথমটি হলো জেনেটিক কিন্তু দ্বিতীয়টি সম্পূর্ণ পরিবার, পরিবেশ, পারিপার্শ্বিকতার উপর নির্ভর করে. প্রত্যেকটি শিশুর চরিত্রগত বৈশিষ্ট্য, ব্যক্তিত্ব আলাদা, তার পারদর্শিতা ও আলাদা, প্রকাশের ভংগী ও আলাদা হয়ে থাকে। ২-৩ বছরের শিশুরা পরিবারের বয়োজ্যেষ্ঠদের কাছ থেকে সামাজিক ও আবেগিক বিকাশ শিখে থাকে যদিও এই বয়সে তারা নিজেদের বুঝতে শুরু করে, গবেষকদের মতে শিশুর ব্যক্তিত্ব বিকাশ শুরু হয় ৩-৫ বছরের মধ্যে এবং শিশু বুঝতে পারে “ who they are and what they want”

The Statutory developmental matters Early Years Foundation stage(EYFS) অনুযায়ী শিশুর বৃদ্ধি এবং বিকাশকে ২ টি ভাগে ভাগ করা হয়েছে, প্রথমটি প্রাইম বা বিশেষ ভাগ এবং অন্যটি স্পেসিফিস ভাগ. এই প্রাইম বা বিশেষ ভাগটিতে রয়েছে শিশুর ব্যক্তিত্ব, সামাজিক এবং আবেগিক বিকাশ(Personal, Social and emotional development), ব্যক্তি শিশুর আবেগিক বিকাশকে প্রথমে প্রাধ্যান দেওয়ার কথা বলেছে এবং পরবর্তীতে শিশুর সামাজিক বিকাশে তার অবদানের কথা বলা হয়েছে।ব্যক্তি শিশুকে যদি প্রাধান্য দেওয়া না হয় তাহলে শিশুর কারও সাথে পারিপার্শ্বিক সম্পর্ক করতে পারবে না, শিশুর self confidence and self awareness তৈরি হবে না. অবশেষে শিশুর আচরণগত ত্রুটি দেখা দেবে যেটি আমাদের কাছে অনাকাঙ্খিত বলে মনে হয় কিন্তু সেটি শিশুর স্বাভাবিক আচরণ।শিশুর choice বা পছন্দ/ অপছন্দ ১-২ বছরের মধ্যেই বিকাশ হতে শুরু করে কিন্তু আমরা আমাদের অজান্তে তাকে দমিয়ে রাখার চেষ্টা করি. EYFS এ এই বুঝতে পারাকে ভালো Positive এবং outstanding development matter বলা হয়.

আমরা আমাদের অজান্তে শিশুকে দমিয়ে রাখার চেষ্টা করি কিভাবে প্রশ্ন আসতে পারে: কৌতূহলকে প্রাধান্য না দেওয়া, ইগনোর করা, রাগ দেখানো, মেজাজ / খিটমিট করা, জোর করে খাবার খাওয়ানো বা পড়াশুনা করানো, এরকম হাজারও উদাহরণ রয়েছে আপনাদের আছে.

শিশুর Personal, Social and emotional development নিয়ে সত্যই ভাবার সময় এসেছে শিশুর চিন্তা, শক্তিকে দমিয়ে দিলে বা তার প্রকৃতি কে যদি গতিহারা করে দেওয়া হয় তাহলে শিশুর স্বাভাবিক বৃদ্ধি ও বিকাশ ব্যাহত হয়, আর সেখান থেকেই ত্রুটিপূর্ণ আচরণ সুতারং শিশুর ব্যক্তিত্ব বিকাশে সাহায্য করুন, শিশুকে বুঝতে চেষ্টা করুন। please if you want to see the video, click the link



6 views0 comments